সোমবার, ২০ অগাস্ট ২০১৮, ১১:২২ অপরাহ্ন

নোটিশ :
বাউফল নিউজ ওয়েবসাইটে আপনাদের স্বাগতম
অতঃপর একটা হাসি দেখিলাম।

অতঃপর একটা হাসি দেখিলাম।

কবি ডা: পঙ্কজ দাস
অতঃপর একটা হাসি দেখিলাম।
লাস্যময়ী নবরূপা সুনয়নার।
সেই মলিন মুখখানি জুড়ে।
গোলাপের পাপড়ির মতো প্রস্ফুটিত।
যেখানে ছিল বিষাদের ছায়া।
মনে হল বাগানের সব হাস্নাহেনা,
সৌরভ ছড়িয়ে তাকে সম্ভাষণ জানালো।
ময়ূর পেখম তুলে নৃত্য করিল।
আমি বিমোহিত হলাম ইনফিনিটি।
লাজুকলতা যেন স্বর্গের অপ্সরাটি।
রুপের রাজ্যে সে রানী।
গুন নাহি আমি জানি।
কত ভ্রমর আসি, তাকে ভালবাসি।
বিবাদে হয় ক্লান্ত।
দিবা শেষে তাই গোধূলি বেলায়,
সবই মনে হয় ভ্রান্ত।
রাজাম্লে স্বর্ন খাঁটি হয় জানি।
মানুষ খাঁটি কিসে?
এত পথ চলি, কত কথা বলি।
কত জনে জিজ্ঞাসে?
খুঁজিতেছি আমি বিশ্বভূবনে,
তন্নতন্ন করি।
ভেজালের মাঝে খাঁটি মানুষ,
জনেজনে ধরি।
আমি কি জানি আমি খাঁটি কিনা?
কি রুপে খুঁজিব আমি?
খাঁটি পরিমাপের মানদণ্ড কি?
বলতে কি পার তুমি?
কাগজের ফুলের মূল্য কি?
তা আসল গোলাপ জানে।
ময়ূর পুচ্ছ কাকে পরিলে।
কি আছে তার মানে?
নকলের ভিড়ে আসল চাপা।
নহে আসলের ভিড়ে নকল।
তবুও আসল সেরার সেরা।
শুনহে বন্ধু সকল।

নিউজটি শেয়ার করুন..

© All rights reserved © 2018 Bauphalnews.Com
Design & Developed BY ThemesBazar.Com